Tuesday , 22 January 2019

মোবাইল ব্যাংকিং নিয়ে সতর্কীকরণ

বিকাশ বা রকেট একাউন্ট নাই এমন মানুষ খুব বেশী না হলেও একেবারে কম না। আপনার বিকাশ বা রকেট বা অন্য যে কোন মোবাইল ব্যাংক এর একাউন্টের গোপন নাম্বার মানে পিন নং বা পাসোয়ার্ড আপনার পরিবারের একজন বা আপনি যাকে বেশী বিশ্বাস করেন তাকে বলে রাখেন। আবার আপনার ব্যক্তিগত ডায়রিতে লিখে রাখতে পারেন। যাতে করে আপনার মৃত্যুর পর আপনার পরিবার জানতে পারে।
ইতোমধ্যেই রকেট এ প্রায় ৫০০ কোটি টাকা আর বিকাশ এর ১৩০০ কোটি টাকার বেওয়ারিশ মালিকানা পাচ্ছে ডাচ বাংলা ব্যাংক এবং ব্রাক ব্যাংক । যে সব একাউন্টের মালিকরা মারা গেছেন উনারাই এই টাকার মালিক ছিলেন। এছাড়াও অন্য মোবাইল ব্যাংক যেমন এম ক্যাশ, শিউর ক্যাশ ইত্যাদি না জানি কত টাকার এভাবে বেওয়ারিশ মালিকানা পাচ্ছে।
যেহেতু এসব মোবাইল ব্যাংক একাউন্টের কোন নমিনী থাকে না তাই এই টাকার কোন দাবিদার থাকে না। কেউ খুজতেও যায় না।
এসব একাউন্টে যতটুকু সম্ভব টাকা কম রাখা ভাল। কেনাকাটা বা লেন-দেনের সমপরিমান ব্যালেন্স রাখবেন। আপনার ব্যবহারের পর চেষ্টা করবেন কম টাকা রাখার।
আপনার পিন নাম্বার জানলেও আপনার মোবাইল ছাড়া কেউ আপনার টাকা উঠাতে পারবেনা এই ব্যাপারে ভয় নাই।
এসব ব্যাংক গুলো মানুষকে বিভিন্ন অফার আর ছাড় দিয়ে মোবাইল ব্যাংক একাউন্ট গুলোতে টাকা রাখার জন্য উৎসাহী করছেন। এই কারনে সাধারন মানুষ এসব কথা মাথায় আনছেন না।
( বিভিন্ন জায়গা হতে সংগৃহীত)

Leave a Reply