Tuesday , 21 August 2018

ইন্টারনেটে ভ্যাট ৫ শতাংশই চূড়ান্ত

শেষ পর্যন্ত ইন্টারনেটে ভ্যাট ৫ শতাংশই চূড়ান্ত হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বুধবার জাতীয় সংসদে সর্বশেষ বাজেট বক্তৃতায় ইন্টারনেটের ওপর বর্তমানে থাকা ১৫ শতাংশ ভ্যাটের ১০ শতাংশই ছাড় দেবার প্রস্তাব করেছেন।

অর্থমন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর সেবাকে অধিকতর সহজলভ্য করার লক্ষ্যে ইন্টারনেট সেবার ওপর প্রযোজ্য ভ্যাট ১৫ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করেছেন।

বুধবার জাতীয় সংসদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পাশ হয়েছে। সেখানেই অর্থমন্ত্রী ইন্টারনেটে ৫ শতাংশ ভ্যাটের বিষয়টি প্রস্তাব করেছেন এবং সেটি পাশ হয়েছে।

এর আগে গত ২১ জুন ইন্টারনেটের এই ভ্যাট প্রথমে ৫ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছিল। পরে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন এই ভ্যাট আরও কমানোর জন্য। এরপর সোমবার এই বিষয়ে সিদ্ধান্তের যে ফাইলে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত স্বাক্ষর করেছেন সেখানে ইন্টারনেটের ভ্যাট রাখা হয় ৫ শতাংশ।

২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ইন্টারনেটে নতুন করে ভ্যাট বাড়ানো না হলেও বিদ্যমান ভ্যাট কমানো হয়নি। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের অন্যতম দাবি ছিল ভ্যাটমুক্ত ইন্টারনেটের।

২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে সম্মিলিত প্রতিক্রিয়া জানায় অ্যামটব, বেসিস, বিসিএস, বিএমপিআইএ, আইএসপিএবি, বাক্য ও ই-ক্যাব ইন্টারনেটে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি জানায়।

Leave a Reply